লক্ষ্মী কাশী চ্যারিটেবল ফাউন্ডেশন

0
15

এই সংস্থা ‘করোনা’য় মানুষের পাশে মানবিক মুখ।
এই সংস্থা কোনরূপ সরকারি বা বেসরকারি সাহায্য গ্রহণ করে না। স্বামী স্ত্রী কাশীনাথ দাস ও লক্ষ্মী দাসের নিজস্ব আয়েতে এই সংস্থা পরিচালিত হয়।
এক হাজার পরিবারকে করোনা মোকাবিলার জন্য বিভিন্ন সংস্থার মাধ্যমে দুই হাজার পাঁচশো কেজি চাল, আলু, মুড়ি দেওয়া হয়েছে। ব্যাঁটরা থানার আধিকারিকের হাতে অফিসারদের জন্য N95 মাস্ক এবং গরিব মানুষদের জন্য একশো কেজি চাল একশো কেজি আলু তুলে দেন। মুখ্যমন্ত্রীর আহবানে সাড়া দিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে প্রথম দফায় ৪/৪/২০২০ তারিখে এক লক্ষ দুই হাজার টাকা এবং ১৫/৪/২০২০ তারিখে দ্বিতীয় দফায় তিরাশি হাজার আটশো টাকার চেক দেওয়া হয়।
আপনারা সুস্থ থাকুন, ভালো থাকুন ,দূরত্ব বজায় রাখুন, ঘরে থাকুন, একদিন না একদিন আমরা করোনা কে জয় করবোই করবো।

Comments

comments